Friday, December 9, 2022
Homeউইকিপিডিয়াঅফিস সহায়কের কাজ কি

অফিস সহায়কের কাজ কি

অনলাইন শপ Gazivai.com ( গাজী ভাই ডট কম) এর পক্ষ থেকে আজকের আর্টিকেলটিতে অফিস সহায়কের কাজ কি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবো ঃ অফিস সহায়কের কাজ কি?এম এল এস এস পদের কাজ কি?অফিস সহায়ক এর কি পদোন্নতি হয়?অফিস সহায়ক এর বেতন?Biwta অফিস সহায়ক এর কাজ কি?অফিস সহায়ক ও অফিস সহকারীর মধ্যে পার্থক্য? অফিস সহায়ক এর শিক্ষাগত যোগ্যতা ? এই সম্পর্কে আমরা বিস্তারিত জানব এবং বিস্তারিত আলোচনা করবো যদি আপনাদের কোন মতামত থাকে তাহলে কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন আমাদের.। তো চলুন বন্ধুরা আর দেরি না করে এক্ষুনি শুরু করা যাক অফিস সহায়কের সম্পর্কে আলোচনা।

অফিস সহায়কের কাজ কি


আরো পড়ুনঃ টাইটান জেল পুরুষের লিঙ্গ ১ থেকে ৩ ইঞ্চি পর্যন্ত বড় ও মোটা করে।

👉সরাসরি কিনতে ক্লিক করুন –এখনই কিনুন

অনলাইনে ছেলেদের ও মেয়েদের যাবতীয় পার্সোনাল ও গোপনীয় পণ্যসামগ্রী সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কসমেটিক সামগ্রী দেশের সবচেয়ে কম দামে ক্রয় করতে ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট Www.gazivai.com .👉সরাসরি অর্ডার করতে ফোন করুন- 01751358525

অফিস সহায়কের কাজ কি

>অফিস সহায়কের কাজ হচ্ছে তার উর্ধতন কর্মকর্তাদের কাজে প্রয়োজনীয় সহযোগীতা করা। অফিস সহায়ক অর্থ- অফিসের কাজে সহায়তা করা। পদবির অর্থ থেকেই স্পষ্ট ধারণা পাওয়া যায় তাদের কর্মপরিধি বা কর্মের ব্যাপ্তি কতটুকু এবং অফিসের কাজের সাথে সম্পর্কিত নয় এমন কোনো কাজ করতে তারা বাধ্য কি না বা তাদের বাধ্য করা যাবে কি না।

অফিস সহায়কের কাজ কি

আরো পড়ুনঃ করার মারাল জেল কিনতে ক্লিক- এখনই কিনুন

>আগেকার চতুর্থ শ্রেণীর অন্তর্ভুক্ত পিয়ন পদটির নাম পরিবর্তন করে অফিস সহায়ক রাখা হয়েছে। কোনো কোনো কার্যালয়ে পিয়নকে দফতরি, চাপরাশি বা আর্দালি নামে ডাকা হতো। পিয়ন শব্দটি ইংরেজি। পিয়ন, দফতরি, চাপরাশি, আর্দালি প্রভৃতিকে এমএলএসএস নামেও অভিহিত করা হতো। এমএলএসএস অর্থ মেম্বার লোয়ার সাব-অর্ডিনেট সার্ভিস। সরকারের জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জারিকৃত ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৪ খ্রিষ্টাব্দের পরিপত্র দ্বারা এমএলএসএস, পিয়ন, দফতরি, চাপরাশি, আর্দালি প্রভৃতি পদবির পরিবর্তন করে অফিস সহায়ক নামের একটি একক পদবি করা হয়। সরকারি অফিসে পিয়ন কিংবা এমএলএসএস নামে ব্রিটিশ আমলের পদ আর নেই। এই পদের নতুন নামই হচ্ছে অফিস সহায়ক।

এম এল এস এস পদের কাজ কি

>এমএলএসএস অর্থ মেম্বার লোয়ার সাব-অর্ডিনেট সার্ভিস। সরকারের জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জারিকৃত ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৪ খ্রিষ্টাব্দের পরিপত্র দ্বারা এমএলএসএস, পিয়ন, দফতরি, চাপরাশি, আর্দালি প্রভৃতি পদবির পরিবর্তন করে অফিস সহায়ক নামের একটি একক পদবি করা হয়।

অফিস সহায়কের কাজ কি

অফিস সহায়ক এর কি পদোন্নতি হয়

বাংলাদেশ সচিবালয়ের নিয়োগ বিধিমালা ২০১৪ মোতাবেক যোগ্যতা অর্জন করায় ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারীকে ৩য় শ্রেণীতে পদোন্নতি প্রদান করা হয়েছে। পদোন্নতির জন্য বিভিন্ন দপ্তরের নিয়োগ ও পদোন্নতি বিধিমালা ভিন্ন। সাধারণত ১/৪ অংশ অফিস সহকারী পদ ৪র্থ শ্রেণী থেকে বিভাগীয় পদোন্নতি পায়।

অফিস সহায়ক এর বেতন

একজন অফিস সহায়ক মাসে সর্ব সাকুল্যে ১৬৯৫০ টাকা।

এখন দেখবো পৌর এলাকায় চাকরি করলে ২০ তম গ্রেডের একজন কর্মচারীর সর্বমোট কত টাকা বেতন পান।

মাসিক মূল বেতন ৮২৫০ টাকা।
মাসিক বাড়ি ভাড়া ভাতা মূল বেতনের ৫৫% হারে ৫০০০ টাকা।
মাসিক চিকিৎসা ভাতা ১৫০০ টাকা।
মাসিক শিক্ষা ভাতা ১০০০ টাকা (একসন্তানের জন্য ৫০০ টাকা হারে)
মাসিক যাতায়াত ভাতা ৩০০ টাকা।
মাসিক টিফিন ভাতা ২০০ টাকা।
মাসিক অন্যান্য বা ধোলাই ভাতা ১০০ টাকা।
একজন অফিস সহায়ক মাসে সর্ব সাকুল্যে ১৬৩৫০ টাকা।

Biwta অফিস সহায়ক এর কাজ কি

>Biwta অফিস সহায়ক অফিস সহায়কের কাজ হচ্ছে তার উর্ধতন কর্মকর্তাদের কাজে প্রয়োজনীয় সহযোগীতা করা। অফিস সহায়ক অর্থ- অফিসের কাজে সহায়তা করা। পদবির অর্থ থেকেই স্পষ্ট ধারণা পাওয়া যায় তাদের কর্মপরিধি বা কর্মের ব্যাপ্তি কতটুকু এবং অফিসের কাজের সাথে সম্পর্কিত নয় এমন কোনো কাজ করতে তারা বাধ্য কি না বা তাদের বাধ্য করা যাবে কি না।

অফিস সহায়ক ও অফিস সহকারীর মধ্যে পার্থক্য

>অফিস সহায়ক ২০ তম গ্রেডের যাদের বেতন স্কেল ৮২৫০-২০০০১০ টাকা এবং চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী অর্থাৎ চাকরির শুরুতে এদের প্রারম্ভিক মূল বেতন ৮২৫০ টাকা। অন্য দিকে একজন অফিস সহকারী বা অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক ১৬ গ্রেডের একজন তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারী। যাদের বেতন স্কেল ৯৩০০-২২৪৯০ টাকা, চাকরির প্রারম্ভে মূল বেতন ৯৩০০ টাকা। আসুন অফিস সহায়ক ও অফিস সহকারী পদের কর্মচারীদের কাজ কি তা এখন জেনে নিই।

অফিস সহায়ক এর শিক্ষাগত যোগ্যতা

অফিস সহায়ক
শিক্ষাগত যোগ্যতা: এসএসসি পাস হতে হবে

অফিস সহায়ক এর দায়িত্ব ও কর্তব্য
১। অফিসের আসবাবপত্র এবং রেকর্ডসমূহের সুন্দরভাবে বিন্যাস সাধন করা এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখা।
২। অফিসের ফাইল এবং কাগজপত্র নির্দেশক্রমে একস্থান হইতে অন্যস্থানে কিংবা অন্য অফিসে স্থানান্তর করা।
৩। হালকা আসবাবপত্র অফিসের মধ্যে একস্থান হইতে অন্যস্থানে সরানো।
৪। গোপন অথবা গুরুত্বপূর্ণ ফাইলসমূহ স্টিলের বাক্স বন্দী করিয়া নির্দেশক্রমে এক অফিস হইতে অন্য অফিসে নেয়া।
৫। কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণকে পানীয় জল পান করাবেন।
৬। তাহারা অফিসের সমস্ত মনিহারী ও অন্যান্য দ্রব্যাদি সংরক্ষণের জন্য দায়ী থাকিবেন।
৭। তাহারা তাদের জন্য নির্ধারিত ইউনিফর্ম পরিধান করিয়া অফিসে আসিবেন।
৮। তাহারা স্ব স্ব শাখা এবং কর্মকর্তার নির্দেশিত কাজ করিবেন।
৯। তাহার দর্শণপ্রার্থী এবং পাবলিকের সহিত ভদ্রতা বজায় রাখিয়া ব্যবহার করিবেন
১০। তাহারা কর্মকর্তার পক্ষে ব্যাংকে চেক জমা এবং টাকা তুলিবেন।
১১। তাহারা অফিস সময়ের ১৫ মিনিট পূর্বে অফিসে আসিবেন এবং সহকারী সচিব/প্রধান সহকারীর নিকট আগমনের রিপোর্ট করিবেন।
১২। তাহারা বিনা অনুমতিতে কোন সময় অফিস ত্যাগ করিবেন না।

আরো পড়ুনঃ দারাজে সবচেয়ে বেশি বিক্রিত জাঙ্গিয়া  কিনতে ক্লিক – এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ ছেলেদের সবচেয়ে বেশি বিক্রিত জাঙ্গিয়া  কিনতে ক্লিক – এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ মেয়েদের সবচেয়ে বেশি বিক্রিত জাঙ্গিয়া কিনতে ক্লিক – এখনই কিনুন

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

x
error: Content is protected !!