Home Questions থানকুনি পাতার উপকারিতা

থানকুনি পাতার উপকারিতা

0
128
থানকুনি পাতার উপকারিতা

থানকুনি পাতার উপকারিত, এটি একটি অতি পরিচিত উদ্ভিদ , এটি গ্রাম গঞ্জের আনাচে-কানাচে হরে হামেশা দেখা যায় কিন্তু এটির উপকারিতা সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানিনা , তবে এক গবেষণায় দেখা গেছে যে ব্যক্তি নিয়মিত থানকুনি পাতার খায় সে ব্যক্তির দেহে সকল রোগের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি পায় ।ছোট এই পাতাটি মধ্যে রয়েছে ঔষধি গুণ তাই এই পাতার রস রোগ নিরাময় অতুলনীয় আজকে আমি আপনাদের জানাব থানকুনি পাতা দিয়ে বেশ কিছু রোগ নিরাময়ের পদ্ধতি তাই কথা না বাড়িয়ে নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হলোঃ

১ চুলের চিকিৎসা ; থানকুনি পাতার রস ও মেথি এবং আমলা মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে চুলে মেখে কিছুক্ষণ সময় অপেক্ষা করুন , এরপর ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন , এভাবে প্রতিদিন অথবা সপ্তাহে 2 দিন ব্যবহার করতে থাকেন দেখবেন আপনার চুলের খুশকি ও চুল পড়া বন্ধ হয়ে গেছে

থানকুনি পাতার উপকারিতা

২ শরীরের ক্ষতিকর টক্সিন বের করে ; আমাদের মানবদেহে প্রতিদিন অনেক ক্ষতিকর টক্সিন প্রবেশ করে এই টক্সিন বের করা না হলে আপনি একদিন অসুস্থ হয়ে পড়বেন আপনার শরীর অকেজো হয়ে যাবে , কিন্তু থানকুনি পাতার রস নিয়মিত সকালে খেলে আপনার এই ক্ষতিকর টক্সিন শরীর থেকে বের করে দিতে সাহায্য করে থানকুনি পাতার উপকারিতা

থানকুনি পাতার উপকারিতা

আরো পড়ুনঃ মোটা হতে ইন্ডিয়ান বডি বিল্ডো কিনতে ক্লিক- এখনই কিনুন

৩ ক্ষতের নিরাময় ; আমাদের শরীরের কোথাও কেটে গেলে বা পুড়ে গেলে ক্ষত হয়ে যায় আর এই ক্ষত জায়গায় থানকুনি পাতা থেতলে লাগিয়ে দিন দেখবেন ব্যথা অনেকটা কমে গেছে এবং আস্তে আস্তে ক্ষত শুকিয়ে যাচ্ছে

৪ হজমশক্তি বৃদ্ধি ; আমরা প্রায়ই আছি যে হজম শক্তি নিয়ে সমস্যায় ভোগে থাকি ঠিকমতো খাবার না খাওয়া তৈলাক্ত জাতীয় খাবার খাওয়া বা বাসি খাবার কারণে আমাদের শরীরে পেটে অনেক রোগ দেখা দেয় পেট ফুলে যায় পেট ফাঁপা দেয় আর এই ফাঁপা দূর করার থানকুনি পাতার রস অনেকটা কার্যকরী ভূমিকা পালন করে

থানকুনি পাতার উপকারিতা ও অপকারিতা

৫ ত্বকের লাবণ্য বৃদ্ধি ; থানকুনি পাতায় এমন কিছু উপাদান আছে যা আপনার শরীরের ক্ষতিকর পদার্থগুলো বের করে দেয় রক্তের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে, কোলেস্টেরল দূর করে এবং রক্তের কার্যক্ষমতা সঞ্চালন বৃদ্ধি করে এ কারণে আপনার শরীর উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে এবং সৌন্দর্য বৃদ্ধি পায় থানকুনি পাতার উপকারিতা

৬ পুরাতন আমাশয় নির্মূল ; আমাদের ভিতরে অনেকেই আছেন পুরাতন আমাশয় ভোগে থাকেন , অনেক ডাক্তার দেখিয়েছেন অনেক ঔষধ খাওয়া হয়েছে কিন্তু কোন কিছুতেই ভালো হয় না , তাদেরকে বলব প্রতিদিন সকালে দুই চামচ করে থানকুনি পাতার রস খালি পেটে খাবেন এভাবে টানা 30 দিন খান দেখবেন আস্তে আস্ত আমাশয় নির্মূল হচ্ছে

থানকুনি পাতার উপকারিতা ও অপকারিতা

আরো পড়ুনঃ মেয়েদের ৩০,৩২,৩৪, ফোম কাপ ব্রা সরাসরি কিনতে ক্লিক – এখনই কিনুন

যৌবন ধরে রাখতে থানকুনি পাতার উপকারিতা

৭ কাশি দূর করে ; আমাদের অনেকেই আছেন হালকা ঠান্ডা কাশিতে ভোগে থাকেন তাদেরকে বলব কাশি হলে থানকুনি পাতার রসের সাথে মধু মিশিয়ে পান করুন এভাবে কয়েকদিন খেতে থাকেন দেখবেন আপনার কাশি বা খুসখুসে কাশি কোনটাই থাকবেনা থানকুনি পাতার উপকারিতা

৮ জ্বরের প্রকোপ কমে ;সিজন পরিবর্তন হয় তখন অনেকেই জ্বরে আক্রান্ত হয়ে থাকে এসময় ডাক্তারের দোকানে অনেক ভিড় লেগে থাকে ঠান্ডা জ্বরের ঔষধের জন্য, কিন্তু এ সময় যদি আপনি থানকুনি পাতার রস নিয়মিত খেতে থাকেন 2-4 বার খেলে দেখবেন আপনার জ্বর আর থাকবেনা গরম পানির সাথে মিশিয়ে আপনি থানকুনি পাতার রস খেতে পারেন

৯ গ্যাস্ট্রিক দূর করে ; আমাদের দেশে অধিকাংশ লোকই গ্যাসটিকে ভুগে থাকেন বুক জ্বালাপোড়া করে বদহজম হয় এবং গ্যাস্টিকের কারণে অনেকের বমি হয় আর এ কারণে সে ঠিকমত খেতে পারেনা শরীর শুকিয়ে যায় তাদেরকে বলব প্রতিনিয়ত থানকুনি পাতার রস

থানকুনি পাতা খাওয়ার নিয়ম

2 টেবিল-চামচ এক গ্লাস দুধের সাথে মিশিয়ে সাথে পরিমাণমতো চিনি দিয়ে খেতে পারেন দেখবেন প্রতিনিয়ত আস্তে আস্তে আপনার গ্যাস্ট্রিক অনেকটাই কমে গেছে তাছাড়া অনেকেই থানকুনি পাতার পেস্ট করে বরি বানিয়ে খেয়ে থাকেন

যৌবন ধরে রাখতে থানকুনি পাতার উপকারিতা

আরো পড়ুনঃ টাইটান জেল পুরুষের লিঙ্গ ১ থেকে ৩ ইঞ্চি পর্যন্ত বড় ও মোটা করে।

থানকুনি পাতা ছোট্ট একটি পাতা কিন্তু এর গুন অনেক বেশি এটি একটি ঔষধি গাছ বলেই বিবেচিত হয় এ গাছ প্রায় জায়গায় দেখা যায় কিন্তু এর মূল্যায়ন তেমন হয় না আসলে আগের দিনে এই পাতার মাধ্যমেই বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা করা হতো বর্তমান হয়তো আমরা সম্পর্কে জানি না

তাই কিছু হলেই ডাক্তারের পিছনে সিরিয়াল দিয়ে রাখে কিন্তু বিভিন্ন উদ্ভিদ গাছ আছে যেগুলো আমাদের অনেক উপকারে আসে কিন্তু আমরা এ সম্পর্কে অজ্ঞ এগুলো নিয়ে আমরা রিসার্চ করি না বা জানার চেষ্টা করি না আমরা যদি সব সময় এগুলো নিয়ে টুকিটাকি বিষয় জানার চেষ্টা করি

তাহলে দেখা যায় সামান্য কিডনি রোগ বালাইতে ডাক্তারের কাছে যেতে হয় না আমরা নিজেরাই ঘরে বসেই এর চিকিৎসা করতে পারি তবে কোনো রোগী মাতৃত্ব হলে ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে হবে কারণ অতিরিক্ত যখন হয়ে যাবে তখন আপনার এই ঘরোয়া চিকিৎসা কাজে আসে না

থানকুনি পাতা খেলে কি হয়

তাই অল্প সময়ে থাকতে আপনি এই উপায় গুলো বেছে নিতে পারেন আপনি সুস্থ হতে পারেন থানকুনি পাতার একটা মেয়ে পরিচিত বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন নামে পরিচিত তবে বর্তমানে থানকুনি নামে সবাই চিনে থাকেন থানকুনি পাতা একটা বহুগুণ সমৃদ্ধ ভেষজ উদ্ভিদ

এটি লতা করে হয়ে থাকে এটি বিভিন্ন জঙ্গলে রাস্তার পাশে এমনকি গাছের সাথে ও দেখা যায় থানকুনি পাতা অনেকের শরীরের এলার্জি দূর করে ফেলে সমস্যায় ভুগলে থানকুনি পাতার রস সাথে পরিমাণমতো চিনি ও লবণ দিয়ে খেতে পারেন এতে এলার্জির অনেকটা উপশম হয়

তাছাড়া থানকুনি পাতার চা অনেকে খেয়ে থাকেন এটা খেলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে গলা ব্যথা থাকলে অনেকটা কমে তাই তার সাথে এটা কি খাওয়া যায় চায়ের সাথে বন্ধুরা আপনাদেরকে উদ্দেশ্য করে বলছি থানকুনি পাতার উপকারিতা

সামান্য কোন রোগের লমুনা নমুনা দেখলে এই উপকরণ এর মাধ্যমে চেষ্টা করতে পারেন দেখবেন একটায় উপকৃত হয়েছেন তারা আবারো বলছি আপনার অতিরিক্ত হলে ডাক্তারের কাছে যাবেন এবং তাদের পরামর্শ দিবে তাহলে আজকে এই পর্যন্তই পরবর্তী কোন বিষয় নিয়ে আবার আলোচনা করব ধন্যবাদ সবাইকে

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

x
error: Content is protected !!