Friday, December 9, 2022
HomeQuestionsপিএসজি কোন দেশের ক্লাব

পিএসজি কোন দেশের ক্লাব

জানবো বিডি ডট নেট এর পক্ষ থেকে আপনাদের সকলকে স্বাগতম। আজকের এই আর্টিকেলে আমরা জানবো পিএসজি কোন দেশের ক্লাব, পিএসজি কোন দেশের ফুটবল ক্লাব, পিএসজি ক্লাব কোন দেশের, পিএসজির মালিক কোন দেশের ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে জানব।

আমাদের www.gazivai.comওয়েবসাইট থেকে আপনার প্রয়োজনীয় পণ্য কেনাকাটা করুন। সবথেকে কম দামে পণ্য কিনতে ভিজিট করুনwww.gazivai.com

পিএসজি কোন দেশের ক্লাব

ইউরোপের ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিস নগরীতে অবস্থিত একটি পেশাদার ফুটবল ক্লাব। এছাড়া বাংলা ভাষায় প্যারিস সেইন্ট জার্মেইনপ্যারিস সেন্ট জার্মেই, ইত্যাদি বিকল্প বানানের প্রতিবর্ণীকরণগুলিও প্রচলিত। ক্লাবটি ১৯৭০ সালে প্রতিষ্ঠা করা হয়।

পিএসজি কোন দেশের ক্লাব
পিএসজি কোন দেশের ক্লাব

আরো পড়ুনঃ ইন্ডিয়ান কস্তুরি গোল্ড কিনতে ক্লিক – এখনই কিনুন

ঐতিহ্যগতভাবে ক্লাবের খেলোয়াড়েরা লাল-নীল পোশাক পরে থাকে। ১৯৭৪ সাল থেকে ক্লাবটি প্যারিসের ১৬তম আরোঁদিসমঁ বা প্রশাসনিক এলাকাতে প্রায় ৪৮ হাজার আসনক্ষমতাবিশিষ্ট পার্ক দে প্রাঁস মাঠে আয়োজক দল হিসেবে খেলে থাকে। এই ক্লাব দলটি ফরাসি ক্লাব প্রতিযোগিতা ব্যবস্থার সর্বোচ্চ স্তরে খেলে থাকে, যার নাম লিগ আঁ

সাম্প্রতিক বছরগুলিতে পারি সাঁ-জেরমাঁ ফ্রান্স ও ইউরপের ফুটবল অঙ্গনে একটি প্রধান শক্তি হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। তারা এ পর্যন্ত ৩৬টি সর্বোচ্চ-স্তরের শিরোপা বিজয় করেছে, যার ফলে তারা ফরাসি ফুটবলের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল ক্লাব দল হিসেবে স্বীকৃত। 

পারি সাঁ-জেরমাঁ একমাত্র ফরাসি ক্লাব যারা কখনো ফ্রান্সের সর্বোচ্চ পেশাদার ক্লাব ফুটবল প্রতিযোগিতা লিগ আঁ থেকে নিম্নতর লিগে অবনমিত হয়নি।তারা ১৯৭৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত টানা ৪৫টি মৌসুম ধরে ফরাসি ক্লাব ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর লিগ আঁ-তে অংশ নিয়েছে। ইউরোপীয় পর্যায়ের প্রধানতম ক্লাব ফুটবল প্রতিযোগিতায় বিজয়ী দুইটি ফরাসি ক্লাবের একটি হল পারি সাঁ-জেরমাঁ।একইসাথে তারা ফ্রান্সের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফুটবল ক্লাব।

পিএসজি কোন দেশের ক্লাব
পিএসজি কোন দেশের ক্লাব

আরো পড়ুনঃ পড়ার টেবিল কোড  ১ কিনতে ক্লিক করুন – এখনই কিনুন

পিএসজি কোন দেশের ফুটবল ক্লাব

ঘরোয়া আসরে প্যারিসের এই ক্লাবটি ৭ বার লিগ আঁ শিরোপা জয় করেছে।এক্ষেত্রে তাদের সবচেয়ে শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী হল বন্দর শহর মার্সেই-ভিত্তিক ওলাঁপিক দ্য মার্সেই। এই দুই দলের খেলাগুলি ফ্রান্সে “ল্য ক্লাসিক” নামে পরিচিত।

২০২০ সালে তারা প্রথমবারের মতো ইউরোপের সবচেয়ে মর্যাদাবাহী আন্তর্জাতিক ক্লাব ফুটবল প্রতিযোগিতা উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা নির্ধারণী খেলায় অংশগ্রহণ করে।

আরো পড়ুনঃ ব্রণের দাগ, কালো দাগ, কাটা দাগ দূর করার ক্রিম সরাসরি – এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ মেয়েদের নাইট ড্রেস সরাসরি কিনতে ক্লিক করুন – এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ ৩০,৩২,৩৪, সাইজের স্পোর্টস ব্রা কিনতে ক্লিক – এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ মেয়েদের ৩০,৩২,৩৪, সাইজের ব্রা সরাসরি কিনতে ক্লিক- এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ মেয়েদের ৩০,৩২,৩৪, ফোম কাপ ব্রা সরাসরি কিনতে ক্লিক – এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ  ৩০,৩২,৩৪, সুতি স্পোর্টস ব্রা সরাসরি কিনতে ক্লিক  – এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ দারাজে সবচেয়ে বেশি বিক্রিত জাঙ্গিয়া  কিনতে ক্লিক – এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ ছেলেদের সবচেয়ে বেশি বিক্রিত জাঙ্গিয়া  কিনতে ক্লিক – এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ মেয়েদের সবচেয়ে বেশি বিক্রিত জাঙ্গিয়া কিনতে ক্লিক – এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ ছেলে মেয়ে উভয়ে পড়তে পারবে এমন জাইংগা কিনতে – এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ আকর্ষণীয় ৩ পিস জর্জেট হিজাব কিনতে ক্লিক – এখনই কিনুন

২০১১ সালে অরিক্স কাতার স্পোর্টস ইনভেস্টমেন্টস ক্লাবটির মালিকানা কিনে নেয়।এই মালিকানা বদলের কারণে পারি সাঁ-জেরমাঁ ফ্রান্সের সবচেয়ে ধনী ক্লাব এবং গোটা বিশ্বের সবচেয়ে ধনবান ক্লাবগুলির একটিতে পরিণত হয়। 

বর্তমানে ক্লাবটির বার্ষিক আয় প্রায় ৪৯ কোটি ইউরো, যা বিশ্বের ৭ম সর্বোচ্চ।ফোর্বস সাময়িকীর মতে এটি বিশ্বের ১১তম সর্বাধিক মূল্যবান ক্লাব, যার মূল্যমান প্রায় ৮৩ কোটি ইউরো

সুইস অ্যাটর্নি জেনারেলের (ওএজি) জানিয়েছে, গত মার্চ শুরু হওয়া এই তদন্তে তাদের বিরুদ্ধে ঘুষ, প্রতারণা, জালিয়াতি-সহ একাধিক অপরাধের অভিযোগ জমা পড়েছে।  

পিএসজি মালিক নাসের আল-খিলাইফি কাতারে ‘বিইন’ নামক একটি ক্রীড়া সম্প্রচার প্রতিষ্ঠানের মালিক। এই প্রতিষ্ঠানের ৫টি শাখা উপমহাদেশে ছড়িয়ে আছে। ওএজির সন্দেহ, এই প্রতিষ্ঠানের মালিক হয়েও বহু বেআইনি কাজে যুক্ত ছিলেন আল-খিলাইফি।

কিন্তু ‘বিইন’ তাদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নাকচ করে বলেছে, ‘ওএজির এই অভিযোগ একেবারেই সত্যি নয়। তবে তাদের তদন্তে আমরা সহযোগিতা করব। এই তদন্তের উপর আমাদের আস্থা আছে। ‘

পিএসজির মালিক কোন দেশের

গত আগস্টে সংবাদ শিরোনামে বার বার উঠে আসে ফরাসি ক্লাব পিএসজির নাম। কারণ একটাই- ব্রাজিল সুপারস্টার নেইমারের আগমন। ২২২ মিলিয়ন ইউরোর এই দলবদল নিয়ে অবশ্য কোনো তদন্তের কথা উল্লেখ করেনি ফিফা।

আরও পড়ুন:  সানি লিওনের এক্সপ্রেস ভিডিও

আরও পড়ুন:  রিয়েলমি 7i বাংলাদেশ প্রাইস,Realme 7i Price in Bangladesh

আরও পড়ুন: চেহারা সুন্দর করার দোয়া

আরও পড়ুন: ভার্জিন মেয়ে চেনার উপায় ছবি সহ
আরও পড়ুন: মালয়েশিয়া টু বাংলাদেশ বিমান ভাড়া কত

বৃহস্পতিবার ভাল্কেকে জেরা করেন সুইস অ্যাটর্নি জেনারেলের প্রতিনিধিরা। তার আইনজীবী স্তিফেন সিকেলদি এই জেরার পরে বলেন, ‘তারা সারাদিন ভাল্কের কথা শুনেছেন। উনি নির্দোষ। ভাল্কের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ প্রমাণ করতে পারেনি ওএজি।

আরও পড়ুন: কাশির ঔষধ ট্যাবলেট ১০ টি ভালো ঔষধ.

আরও পড়ুন: সর্দির ট্যাবলেট ১০ টি ভালো ঔষধ

এই ঘটনায় আরও একজনকে সন্দেহ করা হচ্ছে বলে জানা গেছে। কিন্তু তার ব্যাপারে স্পষ্ট কিছু জানা যায়নি। কৌঁসুলিরা বলেছেন, আগামী ৪টি বিশ্বকাপের সম্প্রচার স্বত্ব পাইয়ে দেওয়ার জন্য ভাল্কে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে অন্যায়ভাবে নানা সুবিধাও আদায় করেছেন।

নাসের আল-খিলাইফিও এই একই অপরাধে তার সঙ্গী বলে মনে করেন তদন্তকারী অফিসাররা। ২০১৮ এবং ২০২২ বিশ্বকাপ যথাক্রমে রাশিয়া ও কাতারে অনুষ্ঠিত হবে। ২০২৬ ও ২০৩০ বিশ্বকাপ কোথায় হবে তা এখনও ঠিক হয়নি।

ভাল্কে ফরাসি বংশোদ্ভূত দক্ষিণ আফ্রিকান নাগরিক। তাকে গত বছর ফিফার দুর্নীতির ঘটনা ফাঁস হওয়ার পর তাকে সচিবের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। তার বিরুদ্ধে এই অভিযোগের পরে তাকে ১০ বছর ফুটবল দুনিয়া থেকে নির্বাসিত করে ফিফা। কিন্তু তাতেও তাকে দমানো যায়নি।

একই কাজে মত্ত রয়েছেন আল খিলাইফিও। ২০১১ সালে পিএসজিকে কাতার স্পোর্টস ইনভেস্টমেন্ট নামের একটি সংস্থা কিনে নেয়। ২২২ মিলিয়ন ইউরো (১৭০৪ কোটি টাকা) ব্যয় করে নেমারের দল বদলের পরে পিএসজি সালের মালিকের উপর সন্দেহ আরও বাড়ে ফিফার। যত দ্রুত সম্ভভ এই দুর্নীতির কালিমা থেকে মুক্ত হতে চায় বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

পিএসজি ক্লাব কোন দেশের

বার্সা ছেড়ে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েও আইনী প্যাঁচে পড়ে এক মৌসুমের জন্য তিনি থেকে গেছেন। তবে চলতি মৌসুম শেষে তার বার্সায় না থাকার সম্ভাবনাই বেশি। চারদিকে জল্পনা চলছে, মেসি বার্সায় না থাকলে কোন ক্লাবে যাবেন?

তাকে পাওয়ার দৌঁড়ে সবচেয়ে এগিয়ে আছে কাতারি মালিক নাসের আল খেলাইফির ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি)। যে ক্লাবে খেলেন মেসির প্রিয়বন্ধু নেইমার। এ কারণে পিএসজি মালিক এখন বার্সা সমর্থকদের দুই চোখের বিষ।

মেসির ক্লাব ছাড়ার ঘোষণার সময় তার গুরু পেপ গার্দিওলার দল ম্যান সিটির নামও শোনা গিয়েছিল। তবে পিএসজির কাতারি মালিকের টাকার কাছে সিটির হেরে যাওয়া স্বাভাবিক। টাকার কুমির হিসেবে পরিচিত এই ক্লাবের বেশ কিছু খেলোয়াড় এর মধ্যেই মেসিকে ক্লাবে খেলার নিমন্ত্রণ দিয়ে রেখেছেন।

কিন্তু বার্সা সমর্থকেরা কোনোমতেই চান না যে, তাদের প্রিয় খেলোয়াড় মেসি ক্লাব ছেড়ে অন্য কোথাও যানয়। তাই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচ খেলতে বার্সেলোনায় যাওয়া পিএসজি দল পড়েছে দর্শকদের তোপের মুখে।

বুধবার পিএসজির প্রেসিডেন্ট নাসের আল খেলাইফির সাথে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিতি হয়ে মেসি বললেন, ঘটনাবহুল একটা সপ্তাহ কাটিয়েছেন তিনি। এখানে ‘আবেগ, আনন্দ এবং কষ্ট’ সবকিছুর একটা মিশেল ছিল।

বার্সেলোনা ছেড়ে আসার কষ্টটা আছে বলছেন মেসি। একই সাথে বলেন, “প্যারিস আসার পর ভালো লেগেছে। যেভাবে এখানে আমাকে স্বাগত জানানো হয়েছে। আমি আপ্লুত।”

পিএসজিতে মেসি সতীর্থ হিসেবে পাবেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার ও ফ্রান্সের তরুণ সেনসেশন কিলিয়ান এমবাপেকে।বিশ্বের সবচেয়ে তারকাবহুল ক্লাব পিএসজির স্কোয়াড এখন কেমন

আমাদের আর্টিকেল বিষয়ে কারো কোন অভিযোগ বা পরামর্শ থাকলে তা নিচে কমেন্ট এর মাধ্যমে অথবা আমাদেরকে ইমেইলের মাধ্যমে জানাতে পারেন আমাদের আর্টিকেল রাইটিং টিম আপনার অভিযোগ বা পরামর্শ সাদরে গ্রহণ করবে এবং সেই অনুযায়ী পদক্ষেপ নিবে

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

x
error: Content is protected !!