Thursday, September 29, 2022
Homeঔষধবেবি জিংক ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম

বেবি জিংক ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম

Janbobd.net ও( গাজী ভাই ডট কম) এর পক্ষ থেকে আজকের আর্টিকেলটিতে বেবি জিংক ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে কথা বলব : বেবি জিংক ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম ? এই সম্পর্কে আমরা বিস্তারিত জানব এবং বিস্তারিত আলোচনা করবো যদি আপনাদের কোন মতামত থাকে তাহলে কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন আমাদের.। তো চলুন বন্ধুরা আর দেরি না করে এক্ষুনি শুরু করা যাক বেবি জিংক ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে আলোচনা।

বেবি জিংক ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম

সরাসরি অর্ডার করতে ফোন করুন- 01751358525
সরাসরি কিনতে ক্লিক করুন –এখনই কিনুন

অনলাইনে ছেলেদের ও মেয়েদের যাবতীয় পার্সোনাল ও গোপনীয় পণ্যসামগ্রী সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কসমেটিক সামগ্রী দেশের সবচেয়ে কম দামে ক্রয় করতে ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট Gazivai.com

বেবি জিংক ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম

Zinc is an essential trace mineral, which means that it must be obtained from the diet since the body cannot make enough. Next to iron, zinc is the most abundant trace mineral in the body. Stored primarily in muscle, zinc is also found in high concentrations in red and white blood cells, the retina of the eye, bones, skin, kidneys, liver, and pancreas. Some of the symptoms of zinc deficiency include loss of appetite, poor growth, weight loss, impaired taste or smell, poor wound healing, skin abnormalities (such as acne, atopic dermatitis and psoriasis), hair loss, night blindness, hypogonadism and delayed sexual maturation, white spots on the fingernails and feelings of depression.

বেবি জিংক ট্যাবলেট খাওয়ার নিয়ম

ব্যবহার
ডায়রিয়া চিকিৎসায়, বিশেষ করে ২ মাস থেকে ৫ বছরের শিশুদের ক্ষেত্রে স্কয়ার জিংক (বেবি জিংক ইউএসপি) যুদপৎভাবে ওর‍্যাল রিহাইড্রেশন সল্টস (ORS) এর সাথে ব্যবহৃত হয়। তাছাড়া স্কয়ার জিংক (বেবি জিংক ইউএসপি) জিংকের ঘাটতিজনিত অন্যান্য সমস্যা যেমন-ক্ষুধামন্দা, তীব্র বৃদ্ধি হ্রাস, বিকৃত হাড় তৈরী, দুর্বল ইমিউনােলােজিক্যাল সাড়া, পুনঃসংঘটনশীল শসানালী সংক্রমণ, এ্যাকরােডার্মাটাইটিস এ্যান্টেরােপ্যাথিকা, প্যারাকেরাটেটিক ত্বকের ক্ষত, অপূর্ণ এবং বিলম্বিত ক্ষতের আরােগ্য, রক্ত স্বল্পতা, রাতকানা, মানসিক অশান্তি-এ নির্দেশিত।

বেবি জিংক খাওয়ার নিয়ম

ডায়রিয়া চিকিৎসায় : ডায়রিয়া শুরুর পর যত দ্রুত সম্ভব জিংক সেবন করা উচিত।
২ থেকে ৬ মাসে শিশু : দৈনিক ১০ মি.গ্রা. জিংক করে ১০-১৪ দিন।
৬ মাস থেকে ৫ বছরের শিশু : দৈনিক ২০ মি.গ্রা. জিংক করে ১০-১৪ দিন।
অন্যান্য নির্দেশনায় :

শিশুদের ক্ষেত্রে অনুমােদিত মাত্রা হচ্ছে দৈনিক ২-২.৫ মি.গ্রা./কেজি দৈহিক ওজন হিসাবে।
১০ কেজির নিচের শিশুদের ক্ষেত্রে: ১০ মি.গ্রা. জিংক দৈনিক ২ বার।
১০ কেজি থেকে ৩০ কেজি পর্যন্ত শিশুদের জন্য : ২০ মি.গ্রা. জিংক দৈনিক ১-৩ বার। প্রাপ্ত বয়স্ক এবং ৩০ কেজি-এর উর্ধ্বে শিশুদের জন্য : ৪০ মি.গ্রা. জিংক দৈনিক ১-৩ বার।

আরো পড়ুনঃ মোটা হতে ইন্ডিয়ান বডি বিল্ডো কিনতে ক্লিক- এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ মোটা হওয়ার পিউটন সিরাপ কিনতে ক্লিক- এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ করার মারাল জেল কিনতে ক্লিক- এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ ছেলেদের টাইটান জেল সরাসরি কিনতে ক্লিক-এখনই কিনুন

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

x
error: Content is protected !!