Friday, December 9, 2022
Homeঔষধfrenxit এর কাজ কি

frenxit এর কাজ কি

অনলাইন শপ ( গাজী ভাই ডট কম) এর পক্ষ থেকে আজকের আর্টিকেলটিতে আমরা কথা বলবো frenxit এর কাজ কি সম্পর্ক : frenxit এর কাজ কি ? Frenxit 0.5 এর কাজ কি?Frenxit এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া?লিনজিট ট্যাবলেট এর কাজ কি?Renxit এর কাজ কি ?Frenxit খাওয়ার নিয়ম?Frenxit এর দাম কত?Flupentixol এর কাজ কি? এই সম্পর্কে আমরা বিস্তারিত জানব এবং বিস্তারিত আলোচনা করবো যদি আপনাদের কোন মতামত থাকে তাহলে কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন আমাদের.। তো চলুন বন্ধুরা আর দেরি না করে এক্ষুনি শুরু করা যাক Kalcoral dx সম্পর্কে আলোচনা।

frenxit এর কাজ কি


আরো পড়ুনঃ ফর্সা হওয়ার কোরিয়ান বডি লোশন কিনতে ক্লিক- এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ ফর্সা হওয়ার কোরিয়ান হোয়াইটিং ক্রিম কিনতে ক্লিক- এখনই কিনুন

সরাসরি কিনতে ক্লিক করুন –এখনই কিনুন

অনলাইনে ছেলেদের ও মেয়েদের যাবতীয় পার্সোনাল ও গোপনীয় পণ্যসামগ্রী সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কসমেটিক সামগ্রী দেশের সবচেয়ে কম দামে ক্রয় করতে ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট Www.gazivai.com :সরাসরি অর্ডার করতে ফোন করুন- 01751358525

frenxit এর কাজ কি

>frenxit এই প্রিপারেশনে আছে দুটি সু-পরিচিত এবং সু-প্রমাণিত যৌগঃ ফ্লুপেনটিক্সল-একটি নিউরোলেপ্টিক, স্বল্প মাত্রায় যার নিজস্ব দুশ্চিন্তা প্রশমনকারী এবং অবসন্নতাবিরোধী বৈশিষ্ট্য রয়েছে এবং মেলিট্রাসিন-একটি বাইপোলার থাইমোলেগ্রিক, স্বল্প মাত্রায় যার এ্যাকটিভিটিং বৈশিষ্ট্য রয়েছে। যৌথভাবে, এই যৌগসমূহ এমন একটি প্রস্তুতি যা অবসন্নতাবিরোধী, দৃশ্চিত্তা প্রশমনকারী এবং এ্যাকটিভেটিং বৈশিষ্ট্য প্রদর্শন করে। ফ্লপেনটিক্সল মুখে গ্রহণ করার প্রায় চার ঘন্টা পর সিরামে সর্বোচ্চ ঘনত্বে পৌঁছায় এবং মেলিট্রাসিন মুখে গ্রহণ করার প্রায় চার ঘন্টা পর সিরামে সর্বোচ্চ ঘনত্বে পৌঁছায়। ফ্লপেনটিক্সল-এর বায়োলোজিক্যাল হাফ-লাইফ প্রায় ৩৫ ঘন্টা এবং মেট্রিাসিন-এর বায়োলোজিক্যাল হাফ-লাইফ প্রায় ১৯ ঘন্টা। ফ্লপেনটিক্সল এবং মেলিট্রাসিন-এর একত্র ব্যবহার, আলাদা আলাদা যৌগের ফার্মাকোকাইনেটিক বৈশিষ্ট্যকে প্রভাবিত করে না।

frenxit এর কাজ কি

আরো পড়ুনঃ মেয়েদের স্তন – দুধ ছোট টাইট করার ক্রিম কিনতে ক্লিক –  এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ মেয়েদের স্তন – দুধ বড় টাইট করার ক্রিম কিনতে ক্লিক- এখনই কিনুন

ব্যবহার
দুশ্চিন্তা, বিষন্নতা, উদাসিনতা ও এ সম্পর্কিত অসুবিধায় ।

Frenxit 0.5 এর কাজ কি

>Franxit 0.5 mg থিওক্স্যানটেনস নামে পরিচিত ওষুধের একটি বিভাগের অধীনে পড়ে। এই ঔষধটি সিজোফ্রেনিয়া হিসাবে মানসিক ব্যাধিগুলির চিকিত্সার জন্য ব্যবহৃত হয়। এটি মস্তিষ্কের স্নায়ুতন্ত্রের সাথে হস্তক্ষেপ করে এবং সিজোফ্রেনিয়া চিহ্নগুলির জন্য দায়ী রাসায়নিক ভারসাম্যকে সংশোধন করে। এই ঔষধটি ব্যবহার করার সময় আপনি শুষ্ক মুখ, মাথা ব্যাথা,মাথা ঘোরাতে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াগুলি অনুভব করতে পারেন , দৃষ্টি সমস্যা, হতাশা, অনিয়ন্ত্রিত পেশী আন্দোলন, ঘুমের বা প্রস্রাবের সমস্যা, স্তন বৃদ্ধি, সময়ের সমস্যা, লিবিডিনাল ড্রাইভ হ্রাস, কোষ্ঠকাঠিন্য, মেজাজ ব্যাধি এবং ডায়রিয়া। প্রতিক্রিয়াগুলি যদি সময়ের সাথে সাথে বা খারাপ হয়ে যায় তবে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আপনার স্বাস্থ্যের যত্ন প্রদানকারীর সাথে যোগাযোগ করুন। আপনি এই ঔষধটি গ্রহণ করতে শুরু করার আগে আপনাকে আপনার ডাক্তারকে অবহিত করা উচিত

Frenxit এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া
নির্দেশিত মাত্রায় পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া খুব একটা দেখা যায় না। কখনও কখনও নিদ্রাহীনতা ও স্বল্পকালীন অস্থিরতা দেখা দিতে পারে।

Renxit এর কাজ কি

Renxit এই প্রিপারেশনে আছে দুটি সু-পরিচিত এবং সু-প্রমাণিত যৌগঃ ফ্লুপেনটিক্সল-একটি নিউরোলেপ্টিক, স্বল্প মাত্রায় যার নিজস্ব দুশ্চিন্তা প্রশমনকারী এবং অবসন্নতাবিরোধী বৈশিষ্ট্য রয়েছে এবং মেলিট্রাসিন-একটি বাইপোলার থাইমোলেগ্রিক, স্বল্প মাত্রায় যার এ্যাকটিভিটিং বৈশিষ্ট্য রয়েছে।

Frenxit খাওয়ার নিয়ম

>প্রাপ্ত বয়স্কদের ক্ষেত্রে : সাধারণত ২টি ট্যাবলেট (সকালে ও বিকেলে)।
>গুরুতর ক্ষেত্রে সকালের মাত্রা বাড়িয়ে ২ টি ট্যাবলেট দেয়া যেতে পারে।
>বয়ােবৃদ্ধদের ক্ষেত্রে : প্রতিদিন সকালে ১ টি ট্যাবলেট। অথবা চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সেব্য।

Frenxit এর দাম কত

Frenxit Tablet
Flupentixol + Melitracen
0.5 mg+10 mg
Beximco Pharmaceuticals Ltd.
Unit Price: ৳ 5.00 (150’s pack: ৳ 750.00)

আরো পড়ুনঃ মেয়েদের স্তন – দুধ ছোট টাইট করার ক্রিম কিনতে ক্লিক –  এখনই কিনুন

আরো পড়ুনঃ মেয়েদের স্তন – দুধ বড় টাইট করার ক্রিম কিনতে ক্লিক- এখনই কিনুন

Flupentixol এর কাজ কি

>প্রিপারেশনে আছে দুটি সু-পরিচিত এবং সু-প্রমাণিত যৌগঃ ফ্লুপেনটিক্সল-একটি নিউরোলেপ্টিক, স্বল্প মাত্রায় যার নিজস্ব দুশ্চিন্তা প্রশমনকারী এবং অবসন্নতাবিরোধী বৈশিষ্ট্য রয়েছে এবং মেলিট্রাসিন-একটি বাইপোলার থাইমোলেগ্রিক, স্বল্প মাত্রায় যার এ্যাকটিভিটিং বৈশিষ্ট্য রয়েছে। যৌথভাবে, এই যৌগসমূহ এমন একটি প্রস্তুতি যা অবসন্নতাবিরোধী, দৃশ্চিত্তা প্রশমনকারী এবং এ্যাকটিভেটিং বৈশিষ্ট্য প্রদর্শন করে। ফ্লপেনটিক্সল মুখে গ্রহণ করার প্রায় চার ঘন্টা পর সিরামে সর্বোচ্চ ঘনত্বে পৌঁছায় এবং মেলিট্রাসিন মুখে গ্রহণ করার প্রায় চার ঘন্টা পর সিরামে সর্বোচ্চ ঘনত্বে পৌঁছায়। ফ্লপেনটিক্সল-এর বায়োলোজিক্যাল হাফ-লাইফ প্রায় ৩৫ ঘন্টা এবং মেট্রিাসিন-এর বায়োলোজিক্যাল হাফ-লাইফ প্রায় ১৯ ঘন্টা। ফ্লপেনটিক্সল এবং মেলিট্রাসিন-এর একত্র ব্যবহার, আলাদা আলাদা যৌগের ফার্মাকোকাইনেটিক বৈশিষ্ট্যকে প্রভাবিত করে না

ব্যবহার
দুশ্চিন্তা, বিষন্নতা, উদাসিনতা ও এ সম্পর্কিত অসুবিধায় ।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

x
error: Content is protected !!