বন্ধ্যাত্ব থেকে মুক্তির উপায় । বন্ধ্যাত্ব কোন ভিটামিনের অভাবে হয়

300.00৳ 

সরাসরি কিনতে ফোন করুন: 01622913639

♣ ঢাকার বাহিরে থেকে অর্ডার করতে চাইলে ১৫০ টাকা অগ্রিম ডেলিভারি পরিশোধ করুন ।

<p>ব্যবহারের সুবিধা;</strong>
১, আপনার লিঙ্গ মোটা এবং বড় করবে।
৩, পূর্বের তুলনায় সময় বাড়াবে এবং সময় দীর্ঘায়িত করবে।
৪, আগের থেকে বেশি সময় স্ত্রী সহবাস করতে পারবেন।
৫, স্ত্রীকে দ্রুত আনন্দ দেওয়া যায় এবং স্ত্রীর অর্গাজম করা সম্ভব।
৬, মেয়েরা পরিপূর্ণ যৌন তৃপ্তি লাভ  লাভ করবে।

742 in stock

Description

বন্ধ্যাত্ব থেকে মুক্তির উপায় । বন্ধ্যাত্ব একটি জটিল সমস্যা হতে পারে, এবং এর সমাধানও একই রকম হবে না।

বন্ধ্যাত্ব থেকে মুক্তির উপায়

বিস্তারিত আলোচনা

প্রথম পদক্ষেপ:

  • একজন প্রজনন বিশেষজ্ঞের সাথে পরামর্শ:
    • কখন: আপনি যদি এক বছরের বেশি সময় ধরে সন্তান ধারণে ব্যর্থ হন (35 বছরের বেশি বয়সী মহিলাদের জন্য 6 মাস)।
      • কোথায়:
        • সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল
        • বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিক
        • প্রজনন কেন্দ্র
    • পড়ুনঃ মোটা হওয়ার ইন্ডিয়ান গুড হেলথ কিনতে এখনই ক্লিক করুন
      • কী করবেন:
        • আপনার চিকিৎসা ইতিহাস সম্পর্কে ডাক্তারকে জানান।
        • শারীরিক পরীক্ষা করান।
        • ডাক্তারের নির্দেশ অনুযায়ী পরীক্ষা করান।
  • ডাক্তার আপনার চিকিৎসা ইতিহাস পর্যালোচনা করবেন, শারীরিক পরীক্ষা করবেন এবং পরীক্ষা নির্ধারণ করবেন।
  • পরীক্ষার মাধ্যমে ডাক্তার বন্ধ্যাত্বের কারণ নির্ণয় করতে পারবেন।

কারণ অনুযায়ী চিকিৎসা:

পুরুষদের ক্ষেত্রে:

  • শুক্রাণুর সংখ্যা কম হলে ঔষধ, কৃত্রিম প্রজনন (IUI) বা IVF
  • ঔষধ: ক্লোমিফেন, টামোক্সিফেন
  • কৃত্রিম প্রজনন (IUI): শুক্রাণুকে সরাসরি গর্ভাশয়ে প্রবেশ করানো
  • IVF (In Vitro Fertilization): ডিম্বাণু এবং শুক্রাণুকে পরীক্ষাগারে নিষিক্ত করা এবং ভ্রূণকে গর্ভাশয়ে প্রবেশ করানো
  • শুক্রাণুতে সমস্যা হলে কৃত্রিম প্রজনন (IUI) বা IVF
  • বীর্যপাতের সমস্যা হলে ঔষধ, অস্ত্রোপচার

মহিলাদের ক্ষেত্রে:

  • ডিম্বস্ফোটন না হওয়া হলে ঔষধ, IUI, IVF
  • ডিম্বাশয়ের সমস্যা হলে ঔষধ, অস্ত্রোপচার
  • ফ্যালোপিয়ান টিউব ব্লক হলে অস্ত্রোপচার, IVF
  • এন্ডোমেট্রিওসিস হলে ঔষধ, অস্ত্রোপচার
  • গর্ভাশয়ের সমস্যা হলে অস্ত্রোপচার

অন্যান্য উপায়:

  • জীবনধারা পরিবর্তন: স্বাস্থ্যকর খাবার, নিয়মিত ব্যায়াম, ধূমপান ত্যাগ, মদ্যপান পরিহার
  • মানসিক চাপ কমানো: যোগব্যায়াম, ধ্যান, থেরাপি
  • প্রজনন সহায়ক প্রযুক্তি (ART): IUI, IVF, surrogacy

মনে রাখবেন:

  • বন্ধ্যাত্বের চিকিৎসায় সময় লাগতে পারে।
  • ধৈর্য ধরুন এবং ডাক্তারের পরামর্শ মেনে চলুন।
  • ইতিবাচক মনোভাব রাখুন।
  • সঙ্গীর সাথে আলোচনা করুন এবং মানসিক সহায়তা নিন।

কিছু দরকারী তথ্য:

  • বাংলাদেশ প্রজনন স্বাস্থ্য সমিতি: [ভুল URL সরানো হয়েছে]
  • বাংলাদেশ ফার্টিলিটি সোসাইটি: [ভুল URL সরানো হয়েছে]
  • ইন্টারন্যাশনাল ফার্টিলিটি অ্যাসোসিয়েশন: [ভুল URL সরানো হয়েছে]

আশা করি এই তথ্য আপনার জন্য সহায়ক হবে।

বন্ধ্যাত্ব কোন ভিটামিনের অভাবে হয়

বন্ধ্যাত্ব একাধিক ভিটামিনের অভাবে হতে পারে, তবে এর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো:

  • ভিটামিন E: ডিম্বাণু ও শুক্রাণুর সঠিক গঠন ও কার্যকারিতা বজায় রাখতে ভিটামিন E গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এর অভাবে ডিম্বাণুতে ত্রুটি দেখা দিতে পারে এবং শুক্রাণুর সংখ্যা ও গতিশীলতা কমে যেতে পারে।
  • ফোলেট (ভিটামিন B9): গর্ভধারণের সময় ভ্রূণের স্নায়ুতন্ত্রের বিকাশে ফোলেট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এর অভাবে গর্ভপাতের ঝুঁকি বেড়ে যায়।
  • ভিটামিন D: ভিটামিন D প্রজনন ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এর অভাবে ডিম্বাশয়ের কার্যকারিতা কমে যেতে পারে এবং শুক্রাণুর সংখ্যা ও গতিশীলতা হ্রাস পেতে পারে।
  • ভিটামিন C: ভিটামিন C একজন শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা ডিম্বাণু ও শুক্রাণুকে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করে। এর অভাবে প্রজনন ক্ষমতা কমে যেতে পারে।
  • জিঙ্ক: জিঙ্ক ডিম্বাণু ও শুক্রাণুর উৎপাদনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এর অভাবে প্রজনন ক্ষমতা হ্রাস পেতে পারে।

এই ভিটামিন ও খনিজগুলি ছাড়াও, আরও কিছু পুষ্টি উপাদান বন্ধ্যাত্বের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করতে পারে, যেমন:

  • ওমেগা-3 ফ্যাটি অ্যাসিড: ওমেগা-3 ফ্যাটি অ্যাসিড প্রদাহ কমাতে এবং প্রজনন ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।
  • অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট: অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ডিম্বাণু ও শুক্রাণুকে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করে।
  • ফাইবার: ফাইবার হরমোনের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে।

বন্ধ্যাত্বের ঝুঁকি কমাতে ভিটামিন ও খনিজ সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়াও, ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ভিটামিন সাপ্লিমেন্টও খাওয়া যেতে পারে।

কিছু ভিটামিন সমৃদ্ধ খাবারের উদাহরণ:

  • ভিটামিন E: বাদাম, বীজ, শাকসবজি, সবুজ পাতাযুক্ত শাক, অ্যাভোকাডো
  • ফোলেট (ভিটামিন B9): ডাল, শাকসবজি, সবুজ পাতাযুক্ত শাক, লেবুজাতীয় ফল, ডিম
  • ভিটামিন D: মাছ, ডিম, দুগ্ধজাত খাবার, রোদে শুকানো মাশরুম
  • ভিটামিন C: লেবুজাতীয় ফল, বেল মরিচ, টমেটো, ব্রকলি
  • জিঙ্ক: ঝিনুক, গরুর মাংস, মুরগির মাংস, বাদাম,

পড়ুনঃ দ্রুত চিকন হওয়ার ওষুধ DETOXI SLIM কিনতে এখনই ক্লিক করুন

আরো পড়ুনঃ আ দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম/ আ দিয়ে মেয়েদের  ইসলামিক নাম

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “বন্ধ্যাত্ব থেকে মুক্তির উপায় । বন্ধ্যাত্ব কোন ভিটামিনের অভাবে হয়”

Your email address will not be published. Required fields are marked *