রোজার নিয়ত ও ইফতারের দোয়া । নফল রোজার নিয়ত আরবি

400.00৳ 

সরাসরি কিনতে ফোন করুন: 01622913639&amp;amp;amp;amp;amp;amp;amp;amp;amp;lt;/span&amp;gt;</span></h3>

♣ ঢাকার

বাহিরে থেকে অর্ডার করতে চাইলে ১৫০ টাকা অগ্রিম ডেলিভারি পরিশোধ করুন ।

ব্যবহারের সুবিধা;
১, আপনার লিঙ্গ মোটা এবং বড় করবে।
২, সহবাসে নতুনত্ব আনতে সহায়তা করবে।
৩, পূর্বের তুলনায় সময় বাড়াবে এবং সময় দীর্ঘায়িত করবে।&lt;br /&gt;৪, আগের থেকে বেশি সময় স্ত্রী সহবাস করতে পারবেন।
>৫, স্ত্রীকে দ্রুত আনন্দ দেওয়া যায় এবং স্ত্রীর অর্গাজম করা সম্ভব।<br />৬, মেয়েরা পরিপূর্ণ যৌন তৃপ্তি লাভ  লাভ করবে।

742 in stock

Description

রোজার নিয়ত ও ইফতারের দোয়া । নফল রোজার নিয়ত আরবি

রোজার নিয়ত ও ইফতারের দোয়া

আরবি:

نَوَيْتُ أَنْ أَصُومَ غَدًا مِنْ شَهْرِ رَمَضَانَ الْمُبَارَكِ فَرْضًا لِلَّهِ تَعَالَى

বাংলা উচ্চারণ:

নাওয়াইতু আন আছুমা গাদাম মিন শাহরি রমাদ্বানাল মুবারক ফারদ্বল্লাহি তা’আলা।

আরো পড়ুনঃ দ্রুত চিকন হওয়ার ওষুধ DETOXI SLIM কিনতে এখনই ক্লিক করুন

পড়ুনঃ আ দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম/ আ দিয়ে মেয়েদের  ইসলামিক নাম

বাংলা অর্থ:

আমি আগামীকাল পবিত্র রমজান মাসের ফরজ রোজা রাখার নিয়ত করলাম আল্লাহ তা’আলার জন্য।

সহজ বাংলা:

হে আল্লাহ! আপনার সন্তুষ্টির জন্য আগামীকালের রমজান শরীফের ফরজ রোযা রাখার নিয়ত করছি। আমার তরফ থেকে আপনি তা কবুল করুন। নিশ্চয়ই আপনি সর্বশ্রোতা, সর্বজ্ঞাত।

ইফতারের দোয়া

আরবি:

اللَّهُمَّ لَكَ صُمْتُ وَعَلَى رِزْقِكَ أَفْطَرْتُ اللَّهُمَّ لَكَ صُمْتُ وَعَلَى رِزْقِكَ أَفْطَرْتُ

বাংলা উচ্চারণ:

আল্লাহুম্মা লাকা ছুমতু ওয়া আলা রিযক্বিকা আফতারতু। আল্লাহুম্মা লাকা ছুমতু ওয়া আলা রিযক্বিকা আফতারতু।

বাংলা অর্থ:

হে আল্লাহ! আমি আপনার জন্য রোজা রেখেছি এবং আপনার রিযিক দ্বারা ইফতার করছি।

সহজ বাংলা:

হে আল্লাহ তায়ালা! আমি আপনার নির্দেশিত মাহে রমজানের ফরজ রোজা শেষে আপনারই নির্দেশিত আইন মেনেই রোজার পরিসমাপ্তি করছি ও রহমতের আশা নিয়ে ইফতার আরম্ভ করছি।

ইফতারের পর “বিসমিল্লাহি ওয়া’আলা বারাকাতিল্লাহ” বলে ইফতার করা উচিত।

দ্রষ্টব্য:

  • রোজার নিয়ত সূর্যাস্তের আগে যেকোনো সময় করা যেতে পারে। তবে, রাতে ঘুমিয়ে যাওয়ার আগে নিয়ত করে নেওয়া উত্তম।
  • ইফতারের দোয়া ইফতার করার পর তাড়াতাড়ি পড়া উচিত।

আরও জানতে:

রোজার নিয়ত ও ইফতারের দোয়া: বিস্তারিত আলোচনা

রোজার নিয়ত:

কখন: রোজার নিয়ত সূর্যাস্তের আগে যেকোনো সময় করা যেতে পারে। তবে, রাতে ঘুমিয়ে যাওয়ার আগে নিয়ত করে নেওয়া উত্তম। কারণ, সূর্যাস্তের পর নিয়ত করার সুযোগ নাও থাকতে পারে।

কিভাবে:

  • মৌখিকভাবে: উপরে উল্লেখিত আরবি নিয়তটি মুখস্থ করে পড়া।
  • মানসিকভাবে: নিয়তের অর্থ মনে মনে করার মাধ্যমে।

উদাহরণ:

  • মৌখিকভাবে: “নাওয়াইতু আন আছুমা গাদাম মিন শাহরি রমাদ্বানাল মুবারক ফারদ্বল্লাহি তা’আলা।”
  • মানসিকভাবে: “হে আল্লাহ! আপনার সন্তুষ্টির জন্য আগামীকালের রমজান শরীফের ফরজ রোযা রাখার নিয়ত করছি। আমার তরফ থেকে আপনি তা কবুল করুন। নিশ্চয়ই আপনি সর্বশ্রোতা, সর্বজ্ঞাত।”

বিশেষ দ্রষ্টব্য:

  • নিয়তের সময় নির্দিষ্ট করে বলতে হবে যে, কোন মাসের রোজা রাখার নিয়ত করা হচ্ছে।
  • নিয়তের সময় “ফরজ” শব্দটি উচ্চারণ করা আবশ্যক।

ইফতারের দোয়া:

কখন: ইফতারের দোয়া ইফতার করার পর তাড়াতাড়ি পড়া উচিত।

কিভাবে:

  • মৌখিকভাবে: উপরে উল্লেখিত আরবি দোয়াটি মুখস্থ করে পড়া।

উদাহরণ:

  • মৌখিকভাবে: “আল্লাহুম্মা লাকা ছুমতু ওয়া আলা রিযক্বিকা আফতারতু। আল্লাহুম্মা লাকা ছুমতু ওয়া আলা রিযক্বিকা আফতারতু।”

বিশেষ দ্রষ্টব্য:

  • ইফতারের দোয়া তিনবার পড়া উত্তম।
  • ইফতারের দোয়া পড়ার পর “বিসমিল্লাহি ওয়া’আলা বারাকাতিল্লাহ” বলে ইফতার করা উচিত।

পরিশেষে:

রোজার নিয়ত ও ইফতারের দোয়া রোজার গুরুত্বপূর্ণ অংশ। সঠিকভাবে নিয়ত ও দোয়া পড়ার মাধ্যমে রোজার পূর্ণ ফায়জা লাভ করা সম্ভব।

আশা করি, এই উত্তরটি আপনার জন্য সহায়ক হবে।

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “রোজার নিয়ত ও ইফতারের দোয়া । নফল রোজার নিয়ত আরবি”

Your email address will not be published. Required fields are marked *