ইমেইল মার্কেটিং করে আয় । ইমেইল মার্কেটিং কিভাবে করে

450.00৳ 

সরাসরি কিনতে ফোন করুন: 01622913639

♣ ঢাকার বাহিরে থেকে অর্ডার করতে চাইলে ১৫০ টাকা অগ্রিম ডেলিভারি পরিশোধ করুন ।

ব্যবহারের সুবিধা;
১, আপনার লিঙ্গ মোটা এবং বড় করবে।<br />৩, পূর্বের তুলনায় সময় বাড়াবে এবং সময় দীর্ঘায়িত করবে।
৪, আগের থেকে বেশি সময় স্ত্রী সহবাস করতে পারবেন।
৫, স্ত্রীকে দ্রুত আনন্দ দেওয়া যায় এবং স্ত্রীর অর্গাজম করা সম্ভব।
৬, মেয়েরা পরিপূর্ণ যৌন তৃপ্তি লাভ  লাভ করবে।

740 in stock

Description

ইমেইল মার্কেটিং করে আয় । ইমেইল মার্কেটিং কিভাবে করে । মার্কেটিং আজও একটি কার্যকর ডিজিটাল মার্কেটিং কৌশল যা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে নতুন গ্রাহক আকর্ষণ, বর্তমান গ্রাহক ধরে রাখা এবং বিক্রয় বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

ইমেইল মার্কেটিং করে আয়:

মার্কেটিং করে আয়ের কয়েকটি উপায়:

১) সরাসরি বিক্রয়:

পণ্য বা সেবার প্রচার:

  • ইমেইলের মাধ্যমে আপনার পণ্য বা সেবার সুবিধা, অফার, এবং ডিসকাউন্ট সম্পর্কে গ্রাহকদের জানাতে পারেন।

উদাহরণস্বরূপ, একটি পোশাকের ব্র্যান্ড নতুন পোশাকের লাইনের প্রচার করতে একটি ইমেইল ক্যাম্পেইন চালাতে পারে। ইমেইলে নতুন পোশাকের ছবি, দাম, এবং ডিসকাউন্টের তথ্য থাকতে পারে।

  • পরিত্যক্ত কার্ট পুনরুদ্ধার: যারা কেনাকাটার সময় কার্ট ছেড়ে দিয়েছে তাদের কাছে রিমাইন্ডার ইমেইল পাঠিয়ে বিক্রয় বৃদ্ধি করতে পারেন।

উদাহরণ, একটি অনলাইন স্টোর এমন গ্রাহকদের কাছে রিমাইন্ডার ইমেইল পাঠাতে পারে যারা তাদের কার্টে পণ্য রেখে কেনাকাটা সম্পন্ন করেনি। ইমেইলে কার্টে রাখা পণ্যের ছবি, দাম, এবং একটি বিশেষ ডিসকাউন্ট অফার থাকতে পারে।

  • স্বয়ংক্রিয় ইমেইল সিরিজ: নতুন গ্রাহকদের স্বাগত জানাতে, লিড তৈরি করতে, এবং পণ্যের ব্যবহার সম্পর্কে তথ্য দিতে স্বয়ংক্রিয় ইমেইল সিরিজ ব্যবহার করতে পারেন।

উদাহরণ , একটি সফ্টওয়্যার কোম্পানি নতুন গ্রাহকদের স্বাগত জানাতে এবং তাদের সফ্টওয়্যার ব্যবহার করতে সাহায্য করার জন্য একটি স্বয়ংক্রিয় ইমেইল সিরিজ তৈরি করতে পারে। সিরিজের প্রথম ইমেইলটিতে স্বাগত জানানো এবং সফ্টওয়্যারের মূল বৈশিষ্ট্যগুলির একটি সংক্ষিপ্ত বিবরণ থাকতে পারে। পরবর্তী ইমেইলগুলিতে সফ্টওয়্যার ব্যবহারের জন্য টিউটোরিয়াল, টিপস এবং কৌশল থাকতে পারে।

২) অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং:

  • অন্যের পণ্যের প্রচার:

    • অন্য কোম্পানির পণ্যের প্রচার করে কমিশন আয় করতে পারেন।

    উদাহরণস্বরূপ, একজন ব্লগার তাদের ব্লগে একটি ভ্রমণ বীমা কোম্পানির পণ্যের প্রচার করতে পারে। যদি কোনও পাঠক ব্লগারের লিঙ্ক ব্যবহার করে বীমা কিনে, তাহলে ব্লগার কমিশন পাবে।

    নিজস্ব অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম:

    • নিজস্ব অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম তৈরি করে অন্যদের আপনার পণ্যের প্রচার করতে উৎসাহিত করতে পারেন।

    উদাহরণস্বরূপ, একটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট তাদের ওয়েবসাইটের জন্য একটি অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম তৈরি করতে পারে। প্রোগ্রামটিতে অংশগ্রহণকারীরা ওয়েবসাইটের লিঙ্ক তাদের ওয়েবসাইট বা সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করবে। যদি কেউ ঐ লিঙ্ক ব্যবহার করে ওয়েবসাইট থেকে কেনাকাটা করে, তাহলে অ্যাফিলিয়েট

৩) স্পন্সরশিপ:

  • ব্র্যান্ডেড ইমেইল: আপনার ইমেইলে স্পন্সরের বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করে আয় করতে পারেন।
  • ডেটা লিস্টিং: আপনার গ্রাহকদের তথ্য স্পন্সরদের কাছে বিক্রি করে আয় করতে পারেন।

৪) ইমেইল লিস্ট বিক্রয়:

  • নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর লিস্ট তৈরি: নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর আগ্রহী গ্রাহকদের তালিকা তৈরি করে বিক্রি করতে পারেন।
  • অনুমতিসাপেক্ষ লিস্ট: গ্রাহকদের অনুমতি সাপেক্ষে তাদের তথ্য অন্য কোম্পানির কাছে বিক্রি করতে পারেন।

ইমেইল মার্কেটিংয়ে সফল হতে:

  • সঠিক গ্রাহক তালিকা তৈরি: আপনার পণ্য বা সেবার প্রতি আগ্রহী গ্রাহকদের তালিকা তৈরি করুন।
  • আকর্ষণীয় ইমেইল তৈরি: স্পষ্ট, সংক্ষিপ্ত, এবং আকর্ষণীয় ইমেইল লিখুন।
  • নিয়মিত ইমেইল পাঠান: নিয়মিত ইমেইল পাঠিয়ে গ্রাহকদের সাথে সম্পর্ক বজায় রাখুন।
  • ফলাফল পর্যবেক্ষণ: আপনার ইমেইল ক্যাম্পেইনের ফলাফল পর্যবেক্ষণ করে উন্নত করুন।

মনে রাখবেন: ইমেইল মার্কেটিংয়ে দীর্ঘমেয়াদী সাফল্য পেতে ধৈর্য এবং নিয়মিত কাজের প্রয়োজন

ইমেইল মার্কেটিং কিভাবে করে

মার্কেটিং হলো আপনার পণ্য বা সেবার প্রচারণা করার জন্য ইমেইল ব্যবহার করার একটি কৌশল। এটি একটি কার্যকর এবং সাশ্রয়ী মূল্যের উপায় যা আপনাকে আপনার লক্ষ্য দর্শকদের কাছে পৌঁছাতে এবং বিক্রয়, লিড এবং ট্র্যাফিক বাড়াতে সাহায্য করতে পারে।

ইমেইল মার্কেটিং শুরু করার জন্য এখানে কয়েকটি টিপস:

1. আপনার লক্ষ্য নির্ধারণ করুন:

আপনি ইমেইল মার্কেটিং দিয়ে কী অর্জন করতে চান? আপনি কি বিক্রয় বাড়াতে চান, লিড তৈরি করতে চান, বা আপনার ওয়েবসাইটে ট্র্যাফিক বৃদ্ধি করতে চান? আপনার লক্ষ্যগুলি নির্ধারণ করলে আপনাকে আপনার ইমেইল ক্যাম্পেইনগুলি আরও ভালভাবে তৈরি করতে সাহায্য করবে।

2. আপনার তালিকা তৈরি করুন:

আপনার ইমেইলগুলি পাঠানোর জন্য আপনাকে প্রথমে একটি ইমেইল তালিকা তৈরি করতে হবে। আপনি আপনার ওয়েবসাইটে একটি সাবস্ক্রিপশন ফর্ম যুক্ত করে, লিড জেনারেশন ক্যাম্পেইন চালিয়ে বা আপনার বিদ্যমান গ্রাহকদের তালিকা ব্যবহার করে এটি করতে পারেন।

3. আকর্ষণীয় ইমেইল লিখুন:

আপনার ইমেইলগুলি আকর্ষণীয় এবং তথ্যপূর্ণ হতে হবে। স্পষ্ট এবং সংক্ষিপ্ত শিরোনাম ব্যবহার করুন এবং আপনার বার্তাটি সহজে বোঝার মতো করে লিখুন।

4. আপনার ইমেইলগুলি ডিজাইন করুন:

আপনার ইমেইলগুলি দেখতে আকর্ষণীয় হওয়া উচিত। একটি স্পষ্ট এবং পেশাদার নকশা ব্যবহার করুন এবং আপনার ব্র্যান্ডের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ রঙ এবং ফন্ট ব্যবহার করুন।

5. আপনার ফলাফল ট্র্যাক করুন:

আপনার ইমেইল ক্যাম্পেইনগুলি কতটা ভালো কাজ করছে তা ট্র্যাক করা গুরুত্বপূর্ণ। আপনার ওপেন রেট, ক্লিক-থ্রু রেট এবং কনভারশন রেট ট্র্যাক করুন।

ইমেইল মার্কেটিং সম্পর্কে আরও জানতে এখানে কয়েকটি দরকারী সংস্থান:

ইমেইল মার্কেটিংয়ের কিছু উদাহরণ:

  • প্রচারমূলক ইমেইল: নতুন পণ্য বা সেবার প্রচার করতে, বা ছাড় এবং অফারগুলি সম্পর্কে গ্রাহকদের জানাতে।
  • স্বাগত ইমেইল: নতুন সাবস্ক্রাইবারদের আপনার ব্র্যান্ডে স্বাগত জানাতে এবং তাদের আপনার পণ্য বা সেবা সম্পর্কে আরও জানতে উৎসাহিত করতে।
  • পরিত্যক্ত কার্ট ইমেইল: যেসব গ্রাহক তাদের কেনাকাটার ঝুড়ি ছেড়ে চলে গেছে তাদের স্মরণ করিয়ে দিতে।

পড়ুনঃ দ্রুত চিকন হওয়ার ওষুধ DETOXI SLIM কিনতে এখনই ক্লিক করুন

আরো পড়ুনঃ আ দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম/ আ দিয়ে মেয়েদের  ইসলামিক নাম

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “ইমেইল মার্কেটিং করে আয় । ইমেইল মার্কেটিং কিভাবে করে”

Your email address will not be published. Required fields are marked *